অধিকার আদায়ে কণ্ঠশিল্পী পরিষদের প্রথম সভা অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত: ৪:১০ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৩, ২০২০

সু.ডা ডেস্ক :
সম্প্রতি গঠিত হয়েছে ‘কণ্ঠশিল্পী পরিষদ বাংলাদেশ’। শনিবার অনুষ্ঠিত হলো সংগঠনটির প্রথম সাধারণ সভা। বর্তমান অস্থায়ী আহবায়ক কমিটির আহবায়ক রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যার সভাপতিত্বে অনলাইন প্ল্যাটফর্ম জুমে অনুষ্ঠিত এই সভায় দেশের বিভিন্ন প্রজন্মের ৭০ জন সংগীতশিল্পী অংশ নেন।
সভার শুরুতেই বিগত সময়ে প্রয়াত সকল সংগীতশিল্পীদের প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন ও তাদের আত্মার শান্তি কামনা করা হয়। স্বশ্রদ্ধচিত্তে স্মরণ করা হয় সকল বীর মুক্তিযোদ্ধাদের, যাদের প্রাণের বিনিময়ে আমরা স্বাধীনতা অর্জন করেছি। এরপর সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন আহবায়ক রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যা। তিনি তার বক্তব্যে বলেন, ‘এই সংগঠনের ব্যাপ্তি সারাদেশে পর্যায়ক্রমে ছড়িয়ে দেওয়া’ই আমাদের লক্ষ্য। আমরা কণ্ঠশিল্পীদের আর্থিক ও নৈতিক অধিকার আদায়ে কাজ করতেই একতাবদ্ধ হয়েছি। ’
এরপর বক্তব্য রাখেন যুগ্ম আহবায়ক কুমার বিশ্বজিৎ ও হাসান আবিদুর রেজা জুয়েল। কুমার বিশ্বজিৎ বলেন, ‘সংগঠনের শুরুতে সবার স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণ আমাদের অনুপ্রাণিত করেছে। আমরা চাইবো নতুন প্রজন্ম আমাদের সংগীতাঙ্গনের হাল ধরতে এগিয়ে আসবে। ’ হাসান আবিদুর রেজা জুয়েল বলেন, ‘আমাদের এই সংগঠন শুধু পিকনিক করার জন্য হয়নি, বিশ্ব সংগীত জগত যেভাবে প্রযুক্তিগত দিক থেকে এগিয়েছে আমাদেরও তার সঙ্গে তাল মিলিয়ে এগিয়ে যেতে হবে। সেই লক্ষ্যে কাজ করবে কণ্ঠশিল্পী পরিষদ বাংলাদেশ। ’
টেলিফোনে শুভেচ্ছা জানান উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য খুরশিদ আলম ও ইন্দ্রমোহন রাজবংশী। এরপর শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন নিয়াজ মোহাম্মাদ চৌধুরী, লিনু বিল্লাহ, রফিকুল আলম, ফকির আলমগীর, তপন মাহমুদ, ফাতেমা তুজ জোহরা, কিরণ চন্দ্র রায়, তপন চৌধুরী, নকিব খান, রুমানা মোরশেদ কনকচাঁপা।
সভায় সংগঠনের গঠনতন্ত্র প্রনয়ণ ও সদস্য সংগ্রহ কার্যক্রম পরিচালনার জন্য দুইটি উপ-কমিটির প্রস্তাব পাশ করা হয়। তার আগে ৪২ সদস্য বিশিষ্ট অস্থায়ী আহবায়ক কমিটি সর্বসম্মতিক্রমে ছয় মাসের জন্য দায়িত্বপ্রাপ্ত হয়। সভায় সিদ্ধান্ত হয় নিয়মিত কার্যক্রম পরিচালনার পাশাপাশি আহবায়ক কমিটি শিল্পীদের আর্থিক ও নৈতিক অধিকার প্রতিষ্ঠায় নিজেদের অবস্থান জানাতে কিছু দাবি ও পর্যবেক্ষণ কপিরাইট অফিসের কাছে পেশ করবে। উক্ত সভার সঞ্চালনা করেন হাসান আবিদুর রেজা জুয়েল ও জয় শাহরিয়ার।

 

এই সংবাদটি 4 বার পঠিত হয়েছে