আবারও বিধি ভেঙে ট্রাম্পের সমাবেশ

প্রকাশিত: ২:১২ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৪, ২০২০

ট্রাম্প

যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এরইমধ্যে প্রায় দুই লাখ মানুষের মৃত্যু হয়েছে। প্রতিদিনই প্রাণ হারাচ্ছে হাজারো মানুষ। তবে তা নিয়ে বিচলিত নন ট্রাম্প। আগামী ৩ নভেম্বরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনকে সামনে রেখে চালানো সমাবেশগুলোতে প্রায়ই তাকে স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষা করতে দেখা যায়। রবিবার নেভাদা অঙ্গরাজ্যে এমনই একটি সমাবেশে অংশ নেন ট্রাম্প। অঙ্গরাজ্যটিতে গত মে মাস থেকে ইনডোর ও আউটডোরে ৫০ জনের বেশি মানুষের জমায়েত নিষিদ্ধ করা হয়েছে। হোয়াইট হাউসের নির্দেশনা মেনেই এ নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে। তবে রবিবার তা উপেক্ষা করেই বিপুল মানুষকে নিয়ে সমাবেশ করেন ট্রাম্প। জুনের পর ইনডোরে এটাই তার প্রথম সমাবেশ। এতে অংশগ্রহণকারীদের অধিকাংশের মুখেই মাস্ক ছিল না।

ওই সমাবেশে ট্রাম্প বলেন, ‘আমরা দেশকে আর অচল করতে চাই না। শাটডাউন জীবনকে ধ্বংস করে দেয়, লাখ লাখ আমেরিকানের স্বপ্ন নষ্ট করে দেয়।’

সমাবেশে দেওয়া এক ঘণ্টার বক্তৃতায় প্রতিদ্বন্দ্বী ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেনকেও আক্রমণ করেন ট্রাম্প। তার দাবি, বাইডেন মাদক গ্রহণ করছেন এবং তিনি অপরাধ দমনে কঠোর নন। মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘বাইডেন দেশের অভ্যন্তরের সন্ত্রাসীদেরকে সন্তুষ্ট রাখতে চায়, আর আমি চাই তাদের গ্রেফতার করতে। বাইডেন জিতলে, বিশৃঙ্খলাকারীরা জিতে যাবে।’

সমাবেশ শুরুর আগে নেভাদা গভর্নরের দেওয়া এক বিবৃতিতে বলা হয়, ট্রাম্প বেপরোয়া ও স্বার্থপরের মতো আচরণ করছেন। অগণিত মনুষের জীবনকে হুমকির মুখে ঠেলে দিচ্ছেন।

এর আগে ৮ সেপ্টেম্বরও নর্থ ক্যারোলিনার উইন্সটন সালেমে করোনা স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষা করেই নির্বাচনি সমাবেশ করেছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। মাস্ক না পরেই সমাবেশে অংশ নিতে দেখা গেছে তাকে। শুধু তাই নয়, স্থানীয়ভাবে ৫০ জনের অধিক মানুষের জমায়েতে নিষেধাজ্ঞা থাকলেও ট্রাম্পের সমাবেশে যোগ দেয় কয়েক শ’ মানুষ। সমর্থকদের অনেকেই পরেননি মাস্ক।

এই সংবাদটি 10 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ