বিশ্ব শিক্ষক দিবস উপলক্ষে জেলা বাকবিশিস’র আলোচনাসভা

প্রকাশিত: ১০:০০ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ৬, ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক:
“শিক্ষক: সংকটে নেতৃত্ব দান, ভবিষ্যতের রূপদর্শী” শীর্ষক প্রতিপাদ্য বিষয়কে সামনে রেখে সুনামগঞ্জে বিশ্ব শিক্ষক দিবস-২০২০ পালিত হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে বাংলাদেশ কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি (বাকবিশিস), সুনামগঞ্জ জেলা শাখার উদ্যোগে গতকাল সোমবার সকাল ১১টায় প্রতিপাদ্য বিষয়ের উপর আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বাকবিশিস জেলা সভাপতি অধ্যাপক শুভঙ্কর তালুকদার মান্না’র এর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক প্রভাষক মো. জামাল হোসেন-এর পরিচালনায় সভাপতির হাছননগরস্থ বাসভবনে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন- সিনিয়র সহ-সভাপতি অধ্যাপক রামানুজ রায়, সহ-সভাপতি প্রভাষক মো. আব্দুল বাতেন, সহ-সাধারণ সম্পাদক প্রভাষক শাহিনা চৌধুরী রুবি, সাংগঠনিক সম্পাদক প্রভাষক দুলাল মিয়া, অর্থ সম্পাদক প্রভাষক কাঞ্চন বৈদ্য, দপ্তর সম্পাদক প্রভাষক মো. ফজলুল হক দোলন, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক প্রভাষক রজত কান্তি রায়, শিক্ষা ও গবেষণা সম্পাদক প্রভাষক মাহমুদ সুলতান, সদস্য- প্রভাষক নূর হোসেন, প্রভাষক মো. জহিরুল ইসলাম, প্রভাষক হিমাদ্রী শংকর তালুকদার, প্রভাষক মো. আবুতাহের রানা, প্রভাষক মো. আশিকুর রহমান, ক্রীড়া শিক্ষক মো. লুৎফুর রহমান ও সহ-গ্রন্থাগারিক স্বপন রায় প্রমূখ।
সভার শুরুতে বৈশ্বিক বিপর্যয় মহামারী করোনায় বিশিষ্টজনসহ অসংখ্য মানুষের প্রাণহানিতে গভীর শোক প্রকাশ করা হয়। প্রায় ছয় মাস যাবৎ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় এ সময়ে যে সকল শিক্ষক অনলাইনে শ্রেণি কার্যক্রম সচল রেখেছেন তাদের ধন্যবাদ জ্ঞাপন করা হয়। একবিংশ শতাব্দীর চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় দক্ষ মানবসম্পদ গড়ে তুলতে শিক্ষকদের পেশাগত কাজে বেশী মনোযোগ দেয়ার জন্য সরকারি শিক্ষকদের ন্যায় এমপিওভুক্ত শিক্ষকদের বাড়ীভাড়া, উৎসবভাতা, চিকিৎসাভাতা, পেনশন সুবিধাসহ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী মুজিববর্ষে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাতীয়করণ করার জন্য সরকারের নিকট বক্তারা জোর দাবি জানান।
দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অপরাজনীতি ও দখলদারীত্ব বন্ধসহ সম্প্রতি সিলেট এমসি কলেজ হোস্টেলে গণধর্ষণে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি ও শিক্ষার্থীদের জন্য নিরাপদ ক্যাম্পাস নিশ্চিত করতে সরকারের নিকট দাবি জানান বক্তারা।
এছাড়াও সংশোধিত এমপিও নীতিমালার প্রস্তাবনার আলোকে ৫০% সহকারি অধ্যাপক পদে পদোন্নতি দ্রুত বাস্তবায়ন এবং অবিলম্বে সহযোগী অধ্যাপক ও অধ্যাপক পদ সৃষ্টি করে পদায়নের জন্য বক্তারা সংশ্লিষ্টদের নিকট জোর দাবি জানান।

 

এই সংবাদটি 7 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ