মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে ভূমিহীন ও গৃহহীন পুনর্বাসনের  লক্ষ্য উপকারভোগী নির্বাচন ও গৃহনির্মাণ কাজ সুষ্ঠুভাবে বাস্তবায়নের জন্য ভিডিও কনফারেন্সিং

প্রকাশিত: ১২:৫৯ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২১, ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক:

“বাংলাদেশের একজন মানুষও গৃহহীন থাকবে না” মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এই নির্দেশনা বাস্তবায়নের লক্ষ্যে ইতোমধ্যে দেশের সকল ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারের তালিকা করা হয়েছে। প্রথম পর্যায়ে সুনামগঞ্জ জেলায় ৩৯০৮টি পরিবারের জন্য বরাদ্দ পাওয়া গিয়েছে। মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে দেশের সকল ভূমিহীন ও গৃহহীন অর্থা “ক” শ্রেণির পরিবার পুনর্বাসনের লক্ষ্যে পরিবার প্রতি ০২ শতাংশ খাস জমি বন্দোবস্ত প্রদানপূর্বক ১ লক্ষ ৭১ হাজার টাকায় নির্মিতব্য দুই কক্ষ বিশিষ্ট (রান্নাঘর, সংযুক্ত টয়লেট ও ইউটিলিটি স্পেসসহ) ঘর নির্মাণ করা হবে। মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে দেশের সকল ভূমিহীন ও গৃহহীন অর্থা “ক” শ্রেণির পরিবার পুনর্বাসনের লক্ষ্যে ১৯ অক্টোবর, ২০২০ তারিখ বিকাল ০৪:০০ টায় উপকারভোগী নির্বাচন ও গৃহ নির্মাণ কাজ সুষ্ঠুভাবে বাস্তবায়নের জন্য প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ড. আহমদ কায়কাউস সকল বিভাগীয় কমিশনার ও জেলা প্রশাসকের সাথে ভিডিও কনফারেন্স করেন। এসময় সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আব্দুল আহাদ তাঁর সাথে যুক্ত হন।

মুজিববর্ষে জনগণকে প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে ১ লক্ষ গৃহহীন পরিবারকে প্রদান করা হবে দুর্যোগ সহনীয় ঘর। প্রতিটি ঘরের মূল্য ১,৭১,০০০/= টাকা হিসেবে সুনামগঞ্জ জেলায় “জমি নেই, ঘর নেই”- শিরোনামে “ক” শ্রেণির ভূমিহীনদের মাঝে আশ্রয়ন প্রকল্পের আওতায় যাচাই-বাছাই পূর্বক গৃহ প্রদান করা হবে।এই উদ্যোগে সামিল হয়ে দেশব্যাপী উর্ধতন সরকারি কর্মচারী, জনপ্রতিনিধি, জনহিতৈষীগণ নিজ উদ্যোগে ১,৭১,০০০/= টাকার ঘর নির্মাণে অংশ নিচ্ছেন। এই উদ্যোগে অংশ নিয়ে সুনামগঞ্জ জেলার কোনো ব্যক্তি যদি জেলার অসহায়ব্যক্তিদেরকে ঘর প্রদান করতে চান তাহলে সংশ্লিষ্ট উপজেলা নির্বাহী অফিসারগণের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ করা যাচ্ছে।

উপজেলাভিত্তিক তালিকা: ০১) দিরাই ২০৩৩টি, ০২) দোয়ারাবাজার ৪৫০টি, ০৩) তাহিরপুর ৩৪টি, ০৪) সুনামগঞ্জ সদর ৫৭০টি, ০৫) দক্ষিণ সুনামগঞ্জ ৪১১টি, ০৬) ছাতক ৫০টি, ০৭) জগন্নাথপুর ৩০টি, ০৮) শাল্লা ১৬০টি, ০৯) ধর্মপাশা ১২০টি, ১০) জামালগঞ্জ ৫০টি, ১১) বিশ্বম্ভরপুর, মোট = ৩৯০৮টি।

এই সংবাদটি 14 বার পঠিত হয়েছে