সংশোধিত কাবিটা নীতিমালা ২০১৭ অনুযায়ী কাবিটা স্কিম প্রণয়ন ও বাস্তবায়ন সংক্রান্ত জেলা কমিটির সভা

প্রকাশিত: ২:২৭ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৩, ২০২০

ইফতি রহমান:
সংশোধিত কাবিটা নীতিমালা ২০১৭ অনুযায়ী কাবিটা স্কিম প্রণয়ন ও বাস্তবায়ন সংক্রান্ত জেলা কমিটির এক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।  বৃহস্পতিবার বেলা ১২টায় জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সভা অনুষ্ঠিত হয়।
জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আব্দুল আহাদ’র সভাপতিতে অনুষ্ঠিত সভায় উপস্থিত ছিলেন- পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ সাবিবুর রহমান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক( শিক্ষা ও আইসিটি) মোঃ জসীম উদ্দিন, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর উপ পরিচালক, পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপ-সহকারী প্রকৌশলীগণ , গণমাধ্যম কর্মীসহ অন্যান্য কর্মকর্তা কর্মচারী গণ।
সভায় বক্তারা বলেন, আগামী ২০ ডিসেম্বরের মধ্যে পিআইসি গঠন করে ২৮ ফেব্রুয়ারির মধ্যে হাওররক্ষা বাঁধের কাজ সম্পন্ন করতে সংশ্লিষ্ট সকলের সহযোগিতা কামনা করা হয়। গণ শুনানি করে ব্যানার লাগিয়ে স্থানীয় কৃষক ও জনপ্রতিনিধি, গণমাধ্যম কর্মীদের উপস্থিতিতে সুষ্ঠুভাবে করার জন্য ইউএনও ও প্রকৌশলীদের কঠোর নির্দেশনা দেয়া হয়। কাজের শুরুতে যেন অর্থ বরাদ্দ ইউএনওদের কাছে দিয়ে দেয়া হয় সে ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিকট বিশেষ অনুরোধ করা হয়। সময় মতো অর্থ বরাদ্দ ও ছাড় দেয়া না হলে এ নিয়ে অনেক ঝামেলা ও ভুল বোঝাবুঝির সৃষ্টি হয়। এ বিষয়ে গত বছর বিভিন্ন প্রশ্ন দেখা দিয়েছিল। পানি উন্নয়ন বোর্ডের উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তাগণ যেন শত ভাগ যাচাই বাছাই করেন সে বিষয়ে ও দাবি জানানো হয়। এ বছর ৬২ কোটি ৫৪লক্ষ টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। ইতিমধ্যে আড়াইশো কিলোমিটার পি-্রওয়ার্ক কাজ সম্পন্ন হয়েছে। পি-্রওয়ার্কের পাশাপাশি স্কিম নির্বাচনসহ অন্যান্য কাজ ও চলমান আছে। সম্ভাব্য পিআইসিদের প্রস্তুত থাকার জন্য ইউএনও ও প্রকৌশলীগণকে বলে দিতে বলা হয়। গত বছরের পিআইসিদের পাওনা বকেয়া ইতিমধ্যে ছাড় করে দেয়া হয়েছে আগামী ১০ ডিসেম্বরের মধ্যে যেন সুষ্ঠুভাবে বিতরণ করা হয় সে জন্য ইউএনও ও প্রকৌশলীদের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এছাড়া, সার নিয়ে কোন অনিয়ম বরদাশত করা হবেনা বলেও সভায় কঠোর হুঁশিয়ারি দেয়া হয়।

এই সংবাদটি 26 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ