গাছে বেঁধে দপ্তরীকে পেটানো সেই যুবলীগ নেতা শাহনুর অবশেষে পুলিশের খাঁচায়

প্রকাশিত: ২:৫৪ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১০, ২০২০


ইফতি রহমান:
দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার শিমুলবাঁক ইউনিয়নের মুক্তাখাই সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দপ্তরীকে গাছে বেঁধে পেটানো যুবলীগ নেতা শাহনুর মিয়াকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
গতকাল বৃহস্পতিবার ভোরে পার্শ্ববর্তী জামালগঞ্জ উপজেলার ভীমখালী ইউনিয়নের লালবাজার থেকে দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানার অফিসার ইনচাজ (ওসি) কাজী মুক্তাদীর হোসেনের দিকনির্দেশনায় এস আই জয়নাল আবেদীনের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল তাকে গ্রেফতার করে আদালতে শোপর্দ করেন।
প্রসঙ্গত,সোমবার (৬ ডিসেম্বর) জেলার দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার শিমুলবাঁক ইউনিয়নের মুক্তাখাই গ্রামের বাসিন্দা ও মুক্তাখাই সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দপ্তরী তোফায়েল আহমেদকে গাছে বেঁধে মধ্যযুগীয় কায়দায় মারপিট করে একই গ্রামের মনোয়ার আলীর ছেলে শাহনুর মিয়া। মারপিটের ভিডিও ফেসবুকে ভাইরাল হওয়ার পর যুবলীগ থেকে তাকে বহিষ্কার করা হয়। ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পর থেকেই পুলিশ নড়েচড়ে বসে। এ ঘটনায় মঙ্গলবার (৮ ডিসেম্বর) নির্যাতনের শিকার মো. তোফায়েল আহমদ বাদী হয়ে অভিযুক্ত শাহনুর মিয়ার বিরুদ্ধে দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানায় নির্যাতনের অভিযোগ দায়ের করেন।
দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কাজী মুক্তাদির হোসেন বলেন,অভিযোগ পাওয়ার পরপরই তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে বিশেষ অভিযান চালিয়ে আসামী শাহনুর মিয়াকে জামালগঞ্জ উপজেলার ভীমখালী ইউনিয়নের লালবাজার থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

এই সংবাদটি 157 বার পঠিত হয়েছে