যেভাবে চলবে ব্যাংকিং কার্যক্রম

প্রকাশিত: ১:২৭ অপরাহ্ণ, মে ১৬, ২০২১

সু:ডা:ডেস্ক:
চলমান লকডাউন আরও এক সপ্তাহ বাড়ানোর পর ব্যাংকের লেনদেনের সময়সীমা পাল্টানো হয়নি। আগামী ২৩ মে পর্যন্ত সকাল ১০টা থেকে বেলা দুইটা পর্যন্ত চলবে লেনদেন।
মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ পঞ্চমবারের মতো লকডাউন বাড়িয়ে ২৩ মে পর্যন্ত সময় বাড়ানোর আদেশ দেওয়ার পর রবিবার (১৬ মে) বাংলাদেশ ব্যাংকের অফ-সাইট সুপারভিশন বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত একটি সার্কুলার জারি করা হয়।

সার্কুলারে বলা হয়, ১৭ থেকে ২৩ মে পর্যন্ত সাপ্তাহিক ও সরকারি ছুটির দিন ছাড়া প্রতিদিন ব্যাংকিং লেনদেন চলবে সকাল ১০টা থেকে দুপুর দুইটা পর্যন্ত। আর আনুষঙ্গিক কাজের জন্য ব্যাংক খোলা থাকবে বেলা সাড়ে তিনটা পর্যন্ত।
আগের সার্কুলার অনুযায়ী বিধিনিষেধ চলাকালে ব্যাংকের স্থানীয় কার্যালয়সহ সব অনুমোদিত ডিলার (এডি) শাখা ও জেলা সদরে অবস্থিত ব্যাংকের প্রধান শাখা খোলা রাখতে হবে। এছাড়া সিটি করপোরেশন এলাকায় প্রতি দুই কিলোমিটারের মধ্যে একটি শাখা খোলা রাখতে হবে। উপজেলা পর্যায়ে প্রতিটি ব্যাংকের একটি শাখা বৃহস্পতিবার, রবিবার ও মঙ্গলবার খোলা রাখতে হবে। ব্যাংকের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের অফিসে আনা-নেওয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট ব্যাংক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবে।
গ্রাহকের হিসাবে সব ধরনের জমা ও উত্তোলন, ডিমান্ড ড্রাফট, পে-অর্ডার ইস্যু ও জমা গ্রহণ, ট্রেজারি চালান গ্রহণ, সরকারের প্রদত্ত ভাতা-অনুদান বিতরণ, বৈদেশিক রেমিট্যান্সের অর্থ পরিশোধ, গ্যাস, পানি, বিদ্যুৎ, টেলিফোন বিল গ্রহণসহ বাংলাদেশ ব্যাংক কর্তৃক চালু রাখা বিভিন্ন পেমেন্ট সিস্টেমের ক্লিয়ারিং ব্যবস্থার আওতাধীন অন্যান্য লেনদেন সুবিধা দেওয়া নিশ্চিত করতে হবে।
সমুদ্র, স্থল, বিমানবন্দর এলাকায় অবস্থিত ব্যাংকের শাখা, উপ-শাখা, বুথগুলো সার্বক্ষণিক খোলা থাকবে। তবে স্থানীয় প্রশাসনসহ বন্দর, কাস্টমস কর্তৃপক্ষ স্বাস্থ্যবিধি পরিপালনে যথাযথ ভূমিকা নেবে।
প্রসঙ্গত, গত ৫ এপ্রিল এক সপ্তাহের জন্য প্রথম লকডাউন দেওয়া হয়। সে সময় ব্যাংকে লেনদেন চলে সকাল ১০টা থেকে বেলা সাড়ে ১২টা পর্যন্ত। ১৪ এপ্রিল থেকে কঠোর লকডাউন শুরু হলে লেনদেন চলে বেলা একটা পর্যন্ত। লকডাউন চতুর্থ দফা বাড়িয়ে ১৬ মে পর্যন্ত করার প্রজ্ঞাপন আসার পর ৫ মে বাংলাদেশ ব্যাংক জানায় লেনদেন চলবে ১০টা থেকে দুইটা পর্যন্ত।

এই সংবাদটি 28 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ