সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশনা জারি: অধস্তন আদালতে শারীরিক উপস্থিতিতে হাজির-আত্মসমর্পণ করা যাবে

প্রকাশিত: ৪:২৮ অপরাহ্ণ, মে ২২, ২০২১


সু:ডা:ডেস্ক:
কোনো ফৌজদারি মামলায় শারীরিক উপস্থিতিতে নিম্ন আদালতে আত্মসমর্পণ বা মামলায় হাজিরা দেওয়ার সুযোগ দিয়ে সুপ্রিম কোর্ট থেকে নির্দেশনা জারি করা হয়েছে। এ বিষয়ে প্রধান বিচারপতির নির্দেশে শনিবার সুপ্রিম র্কোটে রেজিস্ট্রার জেনারেল মো. আলী আকবরের স্বাক্ষরে নির্দেশনা জারি করা হয়েছে। পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত এই আদেশ বহাল থাকবে বলে নির্দেশনায় বলা হয়েছে। দ্বিতীয় পর্যায়ে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ার প্রেক্ষাপটে গত ৫ এপ্রিল থেকে এই সুযোগ বন্ধ ছিল। ওই নির্দেশনায় বলা হয়েছে, ‘উপযুক্ত বিষয়ে নির্দেশিত হয়ে জানানো যাচ্ছে যে, শারীরিক ও সামাজিক দূরত্ব অনুসরণ করে ফৌজদারী মামলায় অভিযুক্ত ব্যক্তি/ব্যক্তিগণ চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট/চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালত এবং নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল, মানবপাচার অপরাধ দমন ট্রাইব্যুনাল ও সাইবার ট্রাইব্যুনালসমূহে আত্মসমর্পণ করতে পারবেন। এতদ্বিষয়ে চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট/চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালত এবং নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল, মানবপাচার অপরাধ দমন ট্রাইব্যুনাল ও সাইবার ট্রাইব্যুনাল বিচারক এজলাস কক্ষে স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালনসহ শারীরিক ও সামাজিক দূরত্ব বজায় নিশ্চিতকরণে প্রয়োজনীয় কার্যপদ্ধতি নির্ধারণ করবেন।’ নির্দেশনায় আরো বলা হয়, ‘চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট/চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালত এবং নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল, মানবপাচার অপরাধ দমন ট্রাইব্যুনাল, সাইবার ট্রাইব্যুনাল সমূহে আত্মসর্ম্পণ আবেদন দাখিল এবং শুনানি কার্যক্রমের পদ্ধতি ও সময়সূচি এমনভাবে সমন্বয় করতে হবে, যাতে আদালত প্রাঙ্গণে এবং আদালত ভবনে কোনরূপ জনসমাগম না ঘটে।’ ‘আত্মসমর্পণ দরখাস্ত শারীরিক উপস্থিতিতে শুনানির সময় অভিযুক্ত ব্যক্তি এবং তারপক্ষে নিযুক্ত আইনজীবী ব্যতীত অন্য আইনজীবী এজলাস কক্ষে অবস্থান করবেন না। একটি আত্মসমর্পণ দরখাস্ত শুনানি শেষে সংশ্লিষ্ট আইনজীবী এজলাস কক্ষ ত্যাগ করার পর ম্যাজিস্ট্রেট/বিচারক পরবর্তী আত্মসমর্পণের দরখাস্ত শুনানির জন্য গ্রহণ করবেন।’

এই সংবাদটি 33 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ