যাদুকাটা নদীতে টাস্কফোর্সের অভিযান

প্রকাশিত: ৩:৪৯ অপরাহ্ণ, জুন ৫, ২০২১

সুলেমান কবীর:
সুনামগঞ্জের তাহিরপুরে যাদুকাটা নদীতে টাস্কফোর্স ফের অভিযান চালিয়ে অবৈধ ভাবে উত্তোলনকৃত বালুসহ ১৮ টি স্টিলবডি নৌকা আটক করেছে। শুক্রবার বিকেলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও এক্সিকিউটিভ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো:রায়হান কবিরের নেতৃত্বে টাস্কফোর্স অভিযান পরিচালনা করা হয়। অভিযানে ঘাগটিয়া ও ঘাগড়ার কুর নামক স্থান থেকে ১০ হাজার ঘনফুট থেকে ১ হাজার ঘনফুট ধারণকৃত ১৮ টি স্টিল বডি নৌকা আটক করা হয়। পরে নৌকায় থাকা ৪৫ হাজার ঘনফুট বালি জব্দ দেখিয়ে রাত ৯ টার দিকে উন্মুক্ত নিলামের মাধ্যমে ১০ লাখ ৯ হাজার ১২৫ টাকায় বিক্রি করা হয়। অপরদিকে অবৈধ বালি পরিবহনের জন্য আটককৃত ১৮টি স্টিল বডি নৌকাকে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে ১ লাখ ৮০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।
শুক্রবার (৫ জুন) বিকাল ৩ টা থেকে রাত ৯ টা পর্যন্ত এ অভিযান পরিচালনা করা হয়। প্রায় ৬ ঘন্টা অভিযান শেষে জব্দকৃত ৪৫ হাজার ঘনফুট বালু ১০ পার্সেন্ট ভ্যাট এবং ৫ পার্সেন্ট টেক্স সহ সরকারি মূল্য ১২ টাকা নির্ধারণ করে নিলামের ওপেন ডাক দেয়া হয়। এতে স্থানীয় ১৯ জন ব্যবসায়ী অংশ গ্রহণ করে। সর্বোচ্ছ করদাতা হিসেবে মোদেরগাও গ্রামের জালাল উদ্দিনের ছেলে সোহাগ মিয়া প্রতি ঘনফুট বালু ১৯ টাকা ৫০ পয়সায় ১০ লাখ ৯ হাজার ১২৫ টাকায় নিলামের মাধ্যমে কিনে নেয়।
এসময় উপস্থিত ছিলেন, সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ রেজাউল করিম, তাহিরপুর থানার ওসি মোহাম্মদ আব্দুল লতিফ তরফদার, সুনামগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের এসও রাকিব হোসেন, বাদাঘাট ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আফতাব উদ্দিন, লাউড়েরগড় সীমান্ত ফাঁড়ির হাবিলদার মাহবুব, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ের অফিস সহকারী আব্দুর রাকিব হোসেন পাঠান।
তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ম্যাজিস্ট্রেট রায়হান কবির বলেন, অবৈধ ভাবে বালি পরিবহনের কাজে ব্যবহৃত আটককৃত নৌকা গুলোকে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে ১৮ টি মামলায় মোট ১ লাখ ৮০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এবং নৌকায় থাকা ৪৫ হাজার ঘনফুট বালু উন্মুক্ত নিলামে ১০ লাখ ৯ হাজার ১২৫ টাকায় বিক্রিয় করা হয়েছে। তিনি বলেন, নিলামকৃত বালি তিনদিনের মধ্যে সরাতে হবে, অন্যথায় এই বালি আবার জব্দ করা হবে।

এই সংবাদটি 12 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ