১৫ মাসে করোনায় সুনামগঞ্জের ৩০ জন সহ সিলেট বিভাগে ৪১৭ জনের প্রাণহানী

প্রকাশিত: ৩:৪৬ অপরাহ্ণ, জুন ৫, ২০২১

মিজানুর রহমান মিজান:
সিলেট বিভাগে প্রতিনিয়ত বাড়ছে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা। সেই সাথে বাড়ছে প্রাণহানী। গত বছরের ১০ মার্চ থেকে এ বছরের শনিবার (৫ জুন) পর্যন্ত ১৫ মাসে সিলেট বিভাগে করোনা আক্রান্ত হয়ে প্রাণহানী হয়েছে ৪১৭ জনের। এদের মধ্যে নারী, পুরুষ ও শিশুরাও রয়েছেন। মহামারি করোনায় আক্রান্ত হয়ে একদিনে আরও ১ জনের মৃত্যু হয়েছে। সেই সাথে আক্রান্ত সনাক্ত হয়েছেন ৮৩ জন। যার মধ্যে ৬৫ জনই সিলেটের। আর একই সময়ে চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হয়েছেন ৬১ জন। শনিবার (৫ জুন) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সিলেট বিভাগীয় পরিচালক ডা:সুলতানা রাজিয়া স্বাক্ষরিত এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।
প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়, গেল ২৪ ঘন্টায় সিলেটের চারটি ল্যাবে নমুনা পরীক্ষায় ৮৩ জন করোনা আক্রান্ত সনাক্ত হন। এর মধ্যে সিলেট জেলার ৬৫ জন, হবিগঞ্জের ৩ জন, মৌলভীবাজারে ৭ জন ও সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আরও ৮ জনের করোনা সনাক্ত হয়।
নতুন এই ৮৩ জনসহ সিলেট বিভাগে করোনা প্রমাণিত রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৩ হাজার ৪৮ জন। এরমধ্যে শুধুমাত্র সিলেট জেলায় আক্রান্ত হয়েছেন ১৫ হাজার ১৫৫ জন। এছাড়া সুনামগঞ্জে ২ হাজার ৮৩২ জন, হবিগঞ্জে ২ হাজার ৫১৭ জন ও মৌলভীবাজারে ২ হাজার ৫৪৪ জনের করোনায় আক্রান্ত সনাক্ত হয়েছে। গেল ২৪ ঘন্টায় সুস্থ হয়েছেন ৬১ জন। এরমধ্যে ৬০ জন সিলেটের বাসিন্দা। এছাড়া মৌলভীবাজারে আরও ১ জন সুস্থ হয়েছেন। এ নিয়ে সুস্থ হওয়ার সংখ্যা দাঁড়ালো ২১ হাজার ৫৭৮ জন। এর মধ্যে সিলেট জেলার ১৪ হাজার ৪৩১ জন। এছাড়া এখন পর্যন্ত সুনামগঞ্জে ২ হাজার ৭৩৪ জন, হবিগঞ্জে ২ হাজার ৭২ জন ও মৌলভীবাজারে ২ হাজার ৩৪১ জন সুস্থ হয়েছেন।
গত ২৪ ঘণ্টায় সিলেট বিভাগের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ১২ জন করোনা আক্রান্ত রোগী। এরমধ্যে সিলেটে ১১ জন, মৌলভীবাজারে আরও ১ জন রয়েছেন। সব মিলিয়ে সিলেট বিভাগের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ২৫৮ জন। এরমধ্যে সিলেট জেলায় ২২১ জন, সুনামগঞ্জে ২ জন, হবিগঞ্জে ১০ জন, মৌলভীবাজারে আরও ২৫ জন।
গত ২৪ ঘন্টায় সিলেট বিভাগে করোনায় ১ জনের মৃত্যু হয়েছে তিনি সিলেট জেলার বাসিন্দা। এ পর্যন্ত সিলেট বিভাগে করোনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ৪১৭ জনে। এরমধ্যে সিলেট জেলার ৩৩৯ জন, সুনামগঞ্জে ৩০ জন, হবিগঞ্জে ১৮ জন ও মৌলভীবাজারের ৩০ জন রয়েছেন।

এই সংবাদটি 11 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ