ছাতকে তৃতীয় শ্রেণির এক স্কুল ছাত্রের রহস্যজনক মৃত্যু

প্রকাশিত: ৫:০১ অপরাহ্ণ, জুন ১৪, ২০২১

 

ছাতক থেকে সংবাদদাতা:
সুনামগঞ্জের ছাতকে জুম্মান আলী (১১) নামের তৃতীয় শ্রেণির এক স্কুল ছাত্রের রহস্যজনক মৃত্যু নিয়ে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। সে উপজেলার নোয়ারাই ইউনিয়নের লক্ষিবাউর গ্রামের কামরুল ইসলামের পুত্র ও স্থানীয় কাড়ইলগাঁও সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্র। জানা যায়, গতকাল রোববার বিকেলে লক্ষিবাউর গ্রামের কামরুল ইসলামের ছেলের
স্কুল ছাত্র জুম্মান আলীর সাথে একই এলাকার প্রতিবেশী নুর ইসলামের ছেলে নুর মিয়ার বাকবিতন্ডা হয়। এক পর্যায়ে জুম্মান আলীর টুকরো ইটের আঘাতে আহত হয় নুর মিয়া। এ ঘটনায় জুম্মানের বাবা কামরুল ইসলামের কাছে নালিশ করে আহত নুর মিয়া। কামরুল ইসলাম নালিশ কারিকে শান্তনা দেন। ওইদিন রাত ৮টার দিকে কামরুল ইসলামের বাড়ীর পাশে একটি রাইস মিলের বাঁশের সাথে গলায় ওড়না পেঁছানো অবস্থায় জুম্মানকে পাওয়া যায়। বাড়ীর লোকজন জুম্মানকে রাত পৌনে ১০টার দিকে উপজেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন। স্থানীয় সচেতন মহলের ধারণা স্কুল ছাত্রকে হত্যা করে বাঁশের সাথে গলায় ওড়না পেঁছিয়ে রাখা হয়েছে। খবর পেয়ে থানার উপ-পরিদর্শক আতিকুল আলম খন্দকার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। তিনি বলেন, শিশুর মৃত্যু রহস্যজনক। ময়না তদন্ত প্রতিবেদন পেলে মৃত্যুর কারন জানা যাবে। গতকাল সোমবার সকালে ময়না তদন্তের জন্য শিশুর লাশটি সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

 

এই সংবাদটি 26 বার পঠিত হয়েছে