দক্ষিণ সুনামগঞ্জে বাসও প্রাইভেট কারের সংঘর্ষে নিহত ১,আহত ১০

প্রকাশিত: ৩:৫৮ অপরাহ্ণ, জুন ২২, ২০২১


ইফতি রহমান:
সুনামগঞ্জের দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার আহসানমারা ব্রীজের দক্ষিণ পাশে একটি প্রাইভেট কারের সাথে ধাক্কা লেগে পাশ^বর্তী ডোবায় পড়ে একজন যাত্রী নিহত হয়েছেন এবং আরো ৩ জন আহত হয়েছেন। নিহত যুবকের নাম মো. সুলতান মিয়া(২২)। তিনি দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার পশ্চিম বীরগাঁও ইউনিয়নের ঠাকুরভোগ গ্রামের আনর মিয়ার ছেলে এবং আহতরা হলেন বিশ^ম্ভরপুর উপজেলার ফতেহপুর ইউনিয়নের ফতেহপুর গ্রামের আকবর হোসেনের মেয়ে মণি বেগম(৩০) ও ছাতক উপজেলার ভাতগাঁও গ্রামে কবিরসহ আরো ৮জন।
জানাযায়,গতকাল সকালে দক্ষিণ সুনামগঞ্জের আহসান মারা এলাকায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে যাত্রীবাহী বাস খাদে পড়ে নিহত হয় সুলতান মিয়া (২০) নামে এক যুবক। নিহত সুলতানের বাড়ি উপজেলার পশ্চিম বীরগাঁও ইউনিয়নের ঠাকুরভোগের সাপেরকোনা গ্রামে। গতকাল মঙ্গলবার সকালে সিলেট থেকে সুনামগঞ্জের উদ্দেশ্যে যাত্রা করে সিলেট-ব ১১০০২৮ নম্বরযুক্ত বাস। সকাল সাড়ে ৯ টার দিকে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে আহসান মারা এলাকায় সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়কের পাশের খাদে পড়ে যায়। এতে ১ জন নিহত অন্তত ১০ জন আহত হন। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সিলেট থেকে সুনামগঞ্জগামী একটি যাত্রীবাহী বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে দক্ষিণ সুনামগঞ্জের আহসানমারা এলাকার সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়কের পাশের খাদে পড়ে যায়। এসময় অনেক যাত্রীবাস থেকে বের হয়ে আসেন। বাস থেকে বের হয়ে আসার সময় কয়েকজন আহত হয়েছেন। বাসের নিচে চাপা পড়া অবস্থায় এক যাত্রীকে গুরুতর অবস্থায় উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে প্রেরণ করে দক্ষিণ সুনামগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস ইউনিট। হাসপাতালে নিয়ে গেলে উদ্ধারকৃত যাত্রী সুলতান মিয়াকে মৃত ঘোষণা করেন কর্বব্যরত ডাক্তার।
খবর পেয়ে জয়কলস হাইওয়ে ও দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহত ও আহতদের উদ্ধার করে সুনামগঞ্জ জেলা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করে।
স্থানীয় ও পুলিশ সুত্রে জানা যায়, সিলেট থেকে ছেড়ে আসা একটি যাত্রীবাহি গেইটলক বিরতিহীন বাস ২৫জন যাত্রী নিয়ে সুনামগঞ্জে আসার পথে দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার জয়কলস ইউনিয়নের আহসানমারা ব্রীজের দক্ষিণ পাশে আসার পর বিপরীত দিক সুনামগঞ্জ থেকে সিলেট যাওয়ার পথে একটি প্রাইভেট কারের মুখোমুখি সংঘর্ষে বাসটি পাশের ডোবায় পড়ে গিয়ে বাসের একজন যাত্রী নিহত হন এবং অপর আরো ১০ জন যাত্রী আহত হন। বাস এবং প্রাইভেট কারের চালক ও হেলপারগন পালিয়ে যায়। দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার দায়িত্বে থাকা থানার এস আই দেবাশিষ সূত্রধর ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

এই সংবাদটি 35 বার পঠিত হয়েছে