টানা বর্ষন ও পাহাড়ি ঢলে ছাতকের নি¤œাঞ্চল প্লাবিত, বড়ধরনের বন্যার আশংকা

প্রকাশিত: ৪:৫২ অপরাহ্ণ, জুন ৩০, ২০২১

ছাতক সংবাদদাতাঃ
তিনদিনের টানা বর্ষন ও পাহাড়ি ঢলে ছাতকের নি¤œাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। নদ-নদীতে দ্রুত গতিতে পানি বৃদ্ধি পাচ্ছে। এখানে বড় ধরনের বন্যার আশংকা করছেন স্থাানীয়রা। উপজেলার নি¤œাঞ্চল ইসলামপুর, নোয়ারাই, ভাতগাও, সিংচাপইড়, উত্তর খুরমা, দক্ষিণ খুরমা, জাউয়াবাজার ও চরমহল্লা ইউনিয়নের বিস্তীর্ণ এলাকা প্লাবিত হয়েছে। রাস্তাঘাট, ঘর-বাড়ি, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বন্যার পানি ছুই-ছুই করছে। ইসলামপুর ইউনিয়নের রতনপুর, নিজগাও, সৈদাবাদ, নোয়ারাই ইউনিয়নের মানিকপুর, গোদাবাড়ী, কালারুকা ইউনিয়নের রামপুর, আজিদরপুর, ছিক্কা, গোবিন্দগঞ্জ-সৈদেরগাও ইউনিয়নের বাবুলী-নোয়াগাও, কটালপুর, ফুরকানচক, ভাতগাও ইউনিয়নের জালিয়া, হায়দরপুর, সিংচাপইড় ইউনিয়নের মহদী, সিংচাপইড়, দোলারবাজার ইউনিয়নের কচুরকান্দি, খাগহাটা, ছৈলা-আফজালাবাদ ইউনিয়নের লাকেশ্বর, ফলিরগাও, উত্তর খুরমা ইউনিয়নের আমেরতল, রুক্কা, গদারমহল, ফুরকাননগর, ঘাটপাড়, এলঙ্গী, দক্ষিণ খুরমা ইউনিয়নের ভূইগাও, রাউলী, মনিরগাতি, জাউয়াবাজার ইউনিয়নের আবিদপুর, কৈতক, ঝামক, সুড়িগাও, চরমহল্লা ইউনিয়নের আছাকাছর, চড়বাড়ুকা, কেজাউরা, ছাতক সদর ইউনিয়নের কাজিহাটা, বাউশা, বড়বাড়ি প্রভৃতি এলাকা বৃষ্টি ও বন্যার পানিতে প্লাবিত হয়েছে। নদ-নদীতে পানিবৃদ্ধি অব্যাহত থাকলে দু’একদিনের মধ্যে গ্রামাঞ্চলের রাস্তা-ঘাট তলিয়ে যাবে। যোগাযোগ ব্যবস্থাা বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়বে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও ঘরবাড়িতে বন্যার পানি প্রবেশ করবে। ছাতকে সুরমা, পিয়াইন ও চেলা নদীতে পানিবৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে। পানি উন্নয়ন বোর্ড ছাতকের উপসহকারী প্রকৌশলী খালিদ হাসান জানান, সুরমা নদীর পানি ছাতক পয়েন্টে বিপদসীমার ৫২ সে.মি. উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

এই সংবাদটি 16 বার পঠিত হয়েছে