জুনে নির্যাতনের শিকার অন্তত ৩২৯ নারী ও কন্যাশিশু

প্রকাশিত: ৫:০২ অপরাহ্ণ, জুলাই ২, ২০২১


সু.ডাক.ডেস্ক:
বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের কেন্দ্রীয় লিগ্যাল এইড উপ-পরিষদে জুন মাসে ১৪৬ জন কন্যাশিশু নির্যাতন এবং ১৮৩ জন নারী নির্যাতনের শিকার হওয়ার ঘটনাসহ মোট ৩২৯ জন নারী ও কন্যাশিশু নির্যাতনের শিকার হওয়ার তথ্য প্রকাশ করেছে। সংরক্ষিত ১৩টি দৈনিক পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদের ভিত্তিতে এ পরিসংখ্যান প্রকাশ করেছে সংগঠনটি। এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে মহিলা পরিষদ জানিয়েছে, পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদ অনুসারে ২০২১ সালের জুন মাসে মোট ৩২৯ জন নারী ও কন্যাশিশু নির্যাতনের শিকার হয়েছে। ধর্ষণের শিকার হয়েছে ১৩৮ জন তন্মধ্যে ৬৯ জন কন্যাশিশু ধর্ষণের শিকার, ৯ জন কন্যাশিশু দলবদ্ধ ধর্ষণের শিকার, ১ জন কন্যাশিশু ধর্ষণের পর হত্যার শিকার হয়েছে। এছাড়াও ১০ জন কন্যাশিশুসহ ১২ জনকে ধর্ষণের চেষ্টা করা হয়েছে। ১ জন শ্লীলতাহানির শিকার হয়েছে। ৯ জন কন্যাশিশুসহ ১০ জন যৌন নিপীড়নের শিকার হয়েছে। ২ জন কন্যাশিশুসহ ৩ জন পিতৃত্বের দাবির ঘটনা ঘটেছে। অগ্নিদগ্ধের শিকার হয়েছে ৩ জন। ৩ জন কন্যাশিশুসহ উত্ত্যক্তকরণের শিকার হয়েছে ৫ জন। ১৫ জন কন্যাশিশুসহ ২১ জন অপহরণের ঘটনার শিকার ও ১ জন কন্যাশিশুসহ ২ জনকে অপহরণের চেষ্টা করা হয়েছে। সংগঠনটি আরো জানিয়েছে, নারী ও শিশু পাচারের ঘটনা ঘটেছে ৭ টি। বিভিন্ন কারণে ৬ জন কন্যাশিশুসহ ৩৮ জনকে হত্যা করা হয়েছে। এছাড়াও ৫ জনকে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে। যৌতুকের কারণে নির্যাতনের শিকার হয়েছে ১৪ জন, তন্মধ্যে ৫ জনকে যৌতুকের কারণে হত্যা করা হয়েছে। শারীরিক নির্যাতনের শিকার হয়েছে ২ জন কন্যাশিশুসহ মোট ৭ জন। বিভিন্ন নির্যাতনের কারনে আত্মহত্যা করেছে ২ জন কন্যাশিশুসহ ১১ জন। ৯ জন কন্যাশিশুসহ ৪১ জনের রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। বাল্যবিবাহ সংক্রান্ত ঘটনা ঘটেছে ৬টি। সাইবার অপরাধের শিকার হয়েছে ৩ জন।

এই সংবাদটি 51 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ