অসহায়দের মধ্যে ব্রিগেডিয়ার জেনারেলের ত্রান বিতরন

প্রকাশিত: ৪:৫৫ অপরাহ্ণ, জুলাই ৮, ২০২১


জামালগঞ্জ প্রতিনিধি:
আমাদের কেউ খোঁজ খবর লয়না। করোনায় সব বন্ধ। ঘরে যা আছিল সব খাইয়া ফালাইছি। আগে বন্যায় বা করোনায় কত সাহায্য দিছে সরকার। এই বার কেউ সাহায্য দেয় নাই। করোনার এই দূর্যোগে কেউ আগাইয়া আয়নাই। ব্রিগেডিয়ার স্যার কষ্ট কইরা আইছইন। আমাদের খোজ-খবর লইছেন। কিছু খাদ্য দিছেন। এতে আমরা খুশি। কয়ডা দিন পোলাপাইন লইয়া খাওন যাইবো।ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোঃ মেসবাহ উদ্দিন আহমেদের খাদ্য সহায়তা পেয়ে এভাবে আনন্দের সাথে অভিব্যক্তি প্রকাশ করলেন নিঃসন্তান বিধবা আইনব বিবি। গতকাল বৃহস্পতিবার বিকালে সুনামগঞ্জ জেলার জামালগঞ্জ উপজেলায় ভীমখালী ইউনিয়নের নোওয়াগাঁও বাজারে ৩০ টি পরিবারের মাঝে খাদ্য সহায়তা দেওয়া হয়। সম্প্রতি করোনা ভাইরাসের সরকার কর্তৃক ঘোষিত লকডাউনে শ্রমজীবি পেশাজীবি পরিবহন শ্রমীকগণ কর্মহীন হয়ে মানবতার জীবন পার করছেন। নোওয়াগাঁও বাজারের পাশের গ্রাম বাহাদুর পুরের শাহজাহান মিয়া (৬৫) জানান আমার তিন ছেলে দুই মেয়ে। রিক্সার চাকা ঘোরিয়ে যে আয় হয় তা দিয়ে পেটের ভাত কোন রকমে চলে। কিন্ত অভাব আর মুছে না। একটা আনলে আরেকটা বাকি থাকে। ব্রিগেডিয়ার জেনারেল স্যার চাল, ডাল, তেল, চিনি , সেমাই দেওয়ায় আমরা খুব খুশি। আমরা মনে করছিলাম আমাদের খোজ কেউ নিবে না। কোন কয়েক দিন দেরি হইলেও ব্রিগেডিয়ার স্যার আমাদের যে পরিমান খাবার দিছে তা দিয়ে কয়েক দিন চইলা যাইবো। অটো রিক্সা চালক আমির আলী বলেন স্যারের দয়ায় যা পাইছি তা দিয়ে দুই চার দিন পোলা পাইন লইয়া খাইতে পারমো। কয়েক দিন আর বাজারে যাওন লাগবো না। লকডাউনে আমাদের কাহিল কইরা ফালাইছে। খাওন দাওন প্রতিদিনের রুজগারের টাকায় চলে। এর আগে কেউ আমাদের সাহায্য করে নাই। আল্লাহ তায়ালা যেন ব্রিগেডিয়ার স্যারকে বেশি দিন বাছাইয়া রাখেন। এই ভাবে খাদ্য সহায়তা পাওয়া লোক গুলোর মলিন মুখে হাঁিস ফুটেছে।
জামালগঞ্জে করোনাকালীন লকডাউনে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর পক্ষে কর্মহীন অসহায় মানুষের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে উপজেলা সদর ও ভীমখালী ইউনিয়নের নোয়াগাঁও বাজারে সিলেট সেনানিবাসের কমা-ার ১১ পদাতিক ব্রিগেডের ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো.মেসবাহ উদ্দিন আহমেদ ৩০ জন অসহায় দরিদ্রদের মাঝে এ ত্রাণ বিতরণ করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন লেফটেন্যান্ট কর্নেল চৌধুরী নাবিদ রিফাত মঞ্জুর, মেজর মোহাইমিনুল ইসলাম, লেফটেন্যান্ট সাকলাইন তুষার, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিশ্বজিত দেব, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. রেদুয়ানুল হালিম, জামালগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ সাইফুল আলম প্রমুখ।
ত্রাণ বিতরণকালে ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মেসবাহ উদ্দিন বলেন, মহামারী করোনা মোকাবেলায় ভীত সন্ত্রস্ত্র না হয়ে বরং স্বাস্থ্যবিধি মেনে সকলকে ধৈর্য্য ধারণ করতে হবে। জরুরী প্রয়োজন ছাড়া কেউ ঘর থেকে বের হবেন না। এ মহামারীকালে কেউ না খেয়ে মরবে না। যাদের খাদ্য সহায়তা প্রয়োজন পড়বে তাদের ঘরে ত্রাণ পৌঁছে দেওয়া হবে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ মোতাবেক গরীব-অসহায়দের মাঝে ত্রাণ দেওয়া হচ্ছে। এ সহায়তা অব্যাহত থাকবে। এ সময় তিনি করোনাকালীর পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করেন এবং জামালগঞ্জের সার্বিক পরিস্থিতি সন্তোষজনক বলে জানান।

এই সংবাদটি 53 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ