দশে মিলে করি কাজ হারি জিতি নাহি লাজ: পরিকল্পনামন্ত্রী

প্রকাশিত: ৪:১৮ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১৪, ২০২১


ইফতি রহমান:
পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান এমপি বলেছেন, আমার কারো বিরুদ্ধে অভিযোগ নেই। আমার নিজের ঘরবাড়ি নেই। আমার সন্তানরা এদেশে আসবে না। তবে আমার কবর এদেশে হবে আশা রাখি। সুনামগঞ্জে আমার বাড়ি, আমি সুনামগঞ্জের পরিচয় দেই। কিছু মানুষ অহেতুক সমস্যা সৃষ্টি করছেন। বলা হচ্ছে আমি নাকি এটা নিয়ে যাচ্ছি ওটা নিয়ে যাচ্ছি।
তিনি বলেন, মেডিকেল ও বিশ্ববিদ্যালয় সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার মধ্যে রয়েছে। আমি হাইওয়ে করিনি, শান্তিগঞ্জ উপজেলা আমি করিনি। আমি আসার আগেই শান্তিগঞ্জ অনুমোদন হয়েছে। আমি কিছু নিয়ে যাইনি। আমার নিজের ভিটাই নেই। সরকারকে দিয়ে দিয়েছি। সুনামগঞ্জবাসীর কাছে আমার একটা অনুরোধ, আসেন একসাথে কাজ করি। একসাথে কাজ করলে বিরাট উন্নয়ন হবে।
তিনি বলেন, আমি একজন কেরানি, সরকারি প্রশিক্ষিত ক্লার্ক, দায়বদ্ধবোধ থেকে জেলার জন্যে কাজ করছি। কিছু সচেতন মানুষ আছেন কিছু করতে গেলেই হাত বাড়ান। ঢাকায় কিছু সুধী মহলের কাছে আমার যে গ্রহণযোগ্যতা ছিলো হাত বাড়ানোতে তাঁর কিছু ক্ষতি হচ্ছে। সরকার প্রধানের কাছে আমার যে বিশ্বাসযোগ্যতা রয়েছে আমি স্বীকার করছি এসব ঘটনায় কিছুটা আছড় ফেলছে। দুঃখ হচ্ছে, এতে আমার চেয়ে জেলার মানুষের ক্ষতি হচ্ছে। আপনাদের দায়িত্ব হলো আমাদের বলা। আপনারা জনপ্রতিনিধি। একে অন্যের পেছনে লাগবেন না।
শনিবার সকাল ১১ টায় সুনামগঞ্জ শিল্পকলা একাডেমির হাসন রাজা মিলনায়তনে জেলা ছাত্রলীগ কর্তৃক বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব স্মরণে বঙ্গমাতা অক্সিজেন সেবার কর্মসূচির উদ্বোধনকালে এসব কথা বলেন তিনি। এসময় পরিকল্পনামন্ত্রী ছাত্রলীগ সম্পর্কে বলেন, ছাত্রলীগ ভালো কাজ করছে। ছাত্রলীগ একটি পুরানো সংগঠন। ছাত্রলীগের জন্ম আওয়ামী লীগ প্রতিষ্ঠার আগে। করোনা মহামারির শুরু থেকে ছাত্রলীগ মাঠে কাজ করছে।
করোনা সংকটে অক্সিজেন সেবার মতো একটি বিশাল কাজ হাতে নেয়ায় সুনামগঞ্জ ছাত্রলীগকে সাধুবাদ জানান।
তিনি এসময় আরও বলেন, করোনা মহামারি মোকাবেলায় সরকার দিনরাত পরিশ্রম করছে। আমাদের আর্থিক যা কিছু আছে সব আগে স্বাস্থ্যের দিকে ডাইভার্ট করা হচ্ছে। স্বাস্থ্যে আমরা প্রথম দিচ্ছি। আমাদের নেতা প্রধানমন্ত্রী বলেছেন তাঁর এখন প্রধান কাজ হচ্ছে মানুষের জীবন রক্ষা করা। এটা বুঝতে হবে। প্রধানমন্ত্রীর একার পক্ষে সম্ভব নয়। সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। দশে মিলে করি কাজ হারি জিতি নাহি লাজ।
সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন-জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর হোসেন, পুলিশ সুপার মো: মিজানুর রহমান বিপিএম, সিভিল সার্জন ডা:শামস উদ্দিন প্রমুখ।

এই সংবাদটি 20 বার পঠিত হয়েছে

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ